বগুড়ায় ১১ বছর পর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত নাঈমের হত্যাকারী গ্রেপ্তার

ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট
৪২

বগুড়া থেকে বিশেষ প্রতিনিধি ঃ-
বগুড়ায় শিশু নাঈম হত্যাকাণ্ডের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জাকারিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার জাকারিয়া কাহালু পৌর মেয়র আব্দুল মান্নান ওরফে ভাটা মান্নানের ছেলে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে কাহালু উপজেলার উট পূর্বপাড়া এলাকায় আসামির নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
সন্ধ্যায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বগুড়া জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( সদর সার্কেল) শরাফত ইসলাম।
এর আগে, ২০১২ সালের ৪ এপ্রিল সকাল সাড়ে ৬টার দিকে কাহালুর রুমচাপড় এলাকার রফিকুল ইসলাম তালুকদারের ১২ বছর বয়সী ছেলে নাঈম ইসলামকে অপহরণ করে জাকারিয়া ও তার সহযোগীরা। পরে আসামিরা নাইমকে জাকারিয়ার দোকান ঘরে আটক রেখে শিশুটির পরিবারের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে ওই দিন বিকেলেই নাইমের মুখে স্কচটেপ পেঁচিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ বস্তায় ভরে জাকারিয়াদের ইটভাটার আগুনে ফেলে পুড়িয়ে ফেলে। ওই ঘটনায় নাঈমের বাবা রফিকুল ইসলাম কাহালু থানায় মামলা করেন। পরে ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি বিকেলে বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১-এর বিচারক হাফিজুর রহমান এ মামলায় জাকারিয়া ও মো. ডালিম এই দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড এবং একজনের সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন। সেই থেকে জাকারিয়া ও ডালিম পলাতক ছিলেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম বলেন, দীর্ঘ ১১ বছর পলাতক থাকার পর আদালতের রায়ের প্রেক্ষিতে গ্রেফতারি ওয়ারেন্টমুলে ওসি মাহমুদ হাসানের নেতৃত্বে জাকারিয়াকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ