প্রবাসী সোহেল রনার সংগ্রামী জীবনের কাহিনী

ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট
১৯

আহম্মদ হুসাইন :রুপসা -খুলনা: বছরের পর বছর ফাড়ি দিয়ে প্রবাসে থাকার পর প্রবাসী যখন দেশে ফিরে আসে তখন এক অন্য রকম অনুভূতি কাজ করে, যখন তার প্রিয় পরিবারের কাছে ফিরে আসে। খুলনা রুপসা উপজেলার পুটিমারী গ্রামের সৈয়দ মোল্ল্যার ছেলে মো:সোহেল রানা,তিনি শিক্ষা জীবন শেষ করে মোটা অঙ্কের বেতনের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ায় চাকরিতে ২০১৮ চলে যান।সেখান থেকে ২০২৪ সালে ৯ জুন রবিবারে দেশে আসেন।এর আগে শিঙ্গাপুর প্রায় ৩-৪ বছর ছিল, পরে দক্ষিণ কোরিয়ায় ভাষা পরিক্ষায় সফল হয়ে চলে যান দক্ষিন কোরিয়ায়। মো: সোহেল রানা ছাত্র জীবন থেকেই অন্য রকম, একজন বড় মনের মানুষ, সৎ,দেশপ্রেমিক, মেধাবী, সাহসী, সমাজের অসহায় মানুষের সেবা করা,ধর্মীয় কাজে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়া,মসজিদ, মাদ্রাসার নির্মানে সহায়তা করায় রয়েছে অন্য রকম অবদান। তার পরিবারেরর লোকজন তাকে পেয়ে বলেন, এ এক অন্য রকম অনুভুতি যা ভাষায় বলা সম্ভাব না। তার বড় ভাই মো:শহিদুল ইসলাম বলেন,আল্লাহ ভাইকে সব সময় সুস্থ ও ভালো রাখুন।ছয় বছর পর ভাইকে ফেয়ে এক অন্য রকম অনুভূতি কাজ করছে। পরবর্তীতে তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিন্দন জানানো হয় । এ সময় তার পরিবারের বাবা মো:সৈয়দ মোল্লা, মা জোসনা বেগম,মো: শহিদুল ইসলাম ছোট ভাই মো: রবিউল ইসলাম, আহম্মদ হুসাইন, মো: ইমামুল মোল্যা,ছোট বোন: শিরিন শিলা লুবনা। এছাড়াও অন্য ব্যাক্তি গন উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও সংবাদ